ওয়াশিকুর বাবুর প্রতি শ্রদ্ধা!

ছেলেটা কোন ব্লগ না লিখেই ব্লগার হয়ে যায় নি। ছেলেটা মুক্তিযুদ্ধ না করেই মুক্তিযোদ্ধা হয়ে যায় নি। ছেলেটা ঘর জামাই হয়ে শ্বশুর বাড়িতে থাকতো না। ছেলেটা মূর্খদের কয়েকটা লাইকের লোভে ইতরসুলভ স্ট্যাটাস দিতো না। ছেলেটার সামান্য আয়রোজগার ছিল, তবে অনেক বেকার ঘর জামাইয়ের মত অন্যের দানে চলতো না।
ছেলেটা ব্লগারদের পিছে পিছে ঘুরে কোটিপতি হওয়ার স্বপ্ন দেখতো না। ছেলেটা শাহবাগের নামে চাঁদা আদায় করতো না। ছেলেটা দানের টাকায় পাঞ্জাবী কিনতো না। ছেলেটা টেন্ডারবাজি থেকে শাহবাগী হয় নি। ছেলেটার নাম ওয়াশিকুর বাবু।

ওয়াশিকুর বাবু রাজনীতিবিদদের মত মিথ্যাবাদী ভণ্ড প্রতারক ছিল না। ছেলেটা ঝোঁপ বুঝে কোপ মারা কী সেটা জানতো না। তাই তাকে জবাই করা হয়েছিল। কিন্তু যতদিন বেঁচে ছিল, বাঘের মতই ছিল। শিয়ালের মত ক্ষমতাসীনের দয়াদাক্ষিণ্যে বেঁচে থাকে নি। ধর্মান্ধদের পা চেটে পরিষ্কার করতে সে রাজি হয় নি। ছেলেটা বলেছিল,

“কেউ আমাকে ধর্মবিদ্বেষী বলে অভিযুক্ত করলে আমি সেটা প্রত্যাখান করি না। কারণ ধর্মবিদ্বেষ অপরাধ নয়। মানববিদ্বেষ অপরাধ। পৃথিবীর সব ধর্মই মানববিদ্বেষে পূর্ণ। মানববিদ্বেষী ধর্মের প্রতি বিদ্বেষ পোষণ করা পবিত্র দায়িত্ব মনে করি।”

– ওয়াশিকুর বাবু।

Facebook Comments